প্রযুক্তি

অবাক করা ৫টি অসাধারণ এবং রহস্যময় ওয়েবসাইট

স্টোরি হাইলাইটস
  • Knowledge is power
  • The Future Of Possible
  • Hibs and Ross County fans on final
  • Tip of the day: That man again
  • Hibs and Ross County fans on final
  • Spieth in danger of missing cut

দিন যত যাচ্ছে আমরা ততোই ডিজিটাল হচ্ছি। ব্যবহার বাড়ছে কম্পিউটার এবং মোবাইল এর, সাথে বাড়ছে নিত্যনতুন ওয়েবসাইটের সংখ্যা।

২০১৪ সালের অক্টোবর মাসে নেটক্রাফ্ট একটি সার্ভে করে, সেই সার্ভেতে পাওয়া গেছে ১ বিলিয়ন ওয়েবসাইট। এছাড়াও ২০১৪ সাল থেকে ২০২১ সাল এতদিনে এটি আরো কয়েক কোটি ছেড়ে গেছে। https://www.internetlivestats.com/ এর মতে এখন ১.৫ বিলিয়ন একটিভ ওয়েবসাইট রয়েছে।

এই বিলিয়ন বিলিয়ন ওয়েবসাইটের মধ্যে আমরা কয়টা সম্পর্কেই বা যানি, আর সেজন্য আজ আমরা ৫টি খুবই মজার ওয়েবসাইট সম্পর্কে জানাবো যা আপনাকে আর্শ্চয্য করতে বাধ্য করবে।

নাম্বার -১ 

প্রথমে যে ওয়েবসাইটে ভিজিট করবো তা হলো http://internet-map.net/ 

আমরা গ্যালাক্সি সম্পর্কে জানি যার মধ্যে হাজার হাজার লক্ষ্য লক্ষ্য নক্ষত্র থাকে, এর মধ্যে আমাদের সূর্য রয়েছে। এই ওয়েবসাইটও দেখে আপনার প্রথমে এমন  মনে হতে পারে দেখুন মনে হচ্ছে এটা একটা গ্যালাক্সি, একদম ঠিক তাই এটা হচ্ছে ওয়েবসাইটের গ্যালাক্সি

এর মধ্যে রয়েছে বিলিয়ন বিলিয়ন ওয়েবসাইট একদম বড় থেকে শুরু করে ছোট ছোট ওয়েবসাইট। এখানে আপনি দেখতে পাচ্ছেন বিভিন্ন আয়াতনের অসংখ্য সার্কেল, এদের আয়তন নির্দেশ করছে কোন ওয়েবসাইট কত বড়। এখানে সবচেয়ে বোরো সার্কেল হচ্ছে এইটা। ক্লিক করে দেখা যাক এইটা কোন ওয়েবসাইট, ত এইটা হচ্ছে গুগল। আর গুগলের নাম আমরা সবাই জানি, গুগল ডট কম এ পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি ইন্টারনেট ইউসার ভিজিট  করে। আর সেইটা প্রায় ৫০ শতাংশ। পরের বড়ো সার্কেলটা দেখা যাক, এইটা হচ্ছে পৃথিবীর দ্বিতীয় ওয়েবসাইট ফেইসবুক ডট কম। আর এইটাতে ৪২% ইন্টারনেট ইউসার ভিসিট করে। পরেরটা দেখা যাক, তৃতীয় স্থানে আছে ইউটিউব। এবার যেকোনো একটা ছোট সার্কেল এ ক্লিক করে দেখা যাক আর এটা হচ্ছে কিউ কিউ ডট কম, এইটা চায়না একটা ওয়েবসাইট চীনে এর স্থান দ্বিতীয় এবং সারা পৃথিবীর হিসেবে ১১তম। এবার উপরের দিকে দেখা যাক এটা হলো আমাজনের, এটা পৃথিবীতে ১৬তম স্থান অধিকার করেছে। ম্যাপের উপরে ডাবল ক্লিক করলে এটা জুম্ হবে তখন আপনি এর মধ্যে থাকা আরো ছোট ছোট ওয়েবসাইট দেখতে পাবেন। এই ওয়েবসাইটটা আমার কাছে কিন্তু দারুন লেগেছে। 

নাম্বার -২  

এবার যে ওয়েবসাইট এর কথা বলবো এটা সত্যি অনেক মজাদার ওয়েবসাইট http://pointerpointer.com/ 

এখানে দেখুন লিখা আছে ফাইন্ডিং পয়েন্টার অর্থাৎ আমার মাউসের যে পয়েন্টার আছে সেটাকে খুজছে। এই ওয়েবসাইটের মজাদার বিষয়টি হলো মাউসের পয়েন্টার যেখানে দাঁড়াবে আর সেখানে আঙ্গুল দিয়ে কেউ দেখাবে। দেখুন এবার পয়েন্টার অন্যদিকে সরিয়ে দেখা যাক, দেখুন আবার মাউস সরাচ্ছি, ওয়াও নাইস আপনি যতবার মাউস পয়েন্টার সরাবেন আপনাকে আঙ্গুল দিয়ে দেখাবে। সত্যিই দারুন। একটু চিন্তা করে দেখুন এখানে কত গুলো ছবি রয়েছে? প্রতিবার মুভ করলেই মানানসই ছবি আসছে। এছাড়াও ওয়েবসাইটের মালিক এর মধ্যে কি প্রোগ্রাম সেট করে রেখেছে তা কিন্তু জানা যায়নি। সত্যি অসাধারণ লেগেছে আমার কাছে।

নাম্বার -৩  

এই সাইটটি একটি দারুন ওয়েবসাইট http://10minutemail.com/

এখানে আপনি ১০ মিনিটের জন্য ইমেইল আইডি বানাতে পারবেন। অর্থাৎ আপনি কিছু সময়ের জন্য একটি টেম্পোরারি ইমেইল আইডি পাবেন, অনেক সময় এমন হয় কোন ওয়েবসাইট ওপেন করলে তারা ইমেইল আইডি চায় তখন আপনি যদি আপনার পার্সোনাল ইমেইল আইডি দেন তাহলে ওই ওয়েবসাইট থেকে আপনাকে বার বার ইমেইল নোটিফিকেশন পাঠাবে আর এটা সত্যি অসহ্যকর লাগে। অনেক সময় স্প্যাম ইমেইল ও পাঠায় আর এই সমস্যা থেকে রক্ষা পেতে আপনি এই টেম্পোরারি ইমেইল দিয়ে কাজ চালাতে পারেন।

দেখুন আমি একটি ইমেইল আইডি বানিয়ে দেখাচ্ছি। তারপর পেজটা রিফ্রেশ করুন, দেখুন আপনার ইমেইল ইনবক্স চলে আসছে। তাহলে বুঝতেই পারছেন এই ওয়েবসাইট কতটা উপকারী। আপনার পার্সোনাল ইমেইল আইডির কোনো ঝামেলা থাকলো না। স্প্যাম ইমেইল আর আসবে না। আপনি চাইলে সময় আরো বাড়িয়ে নিতে পারবেন। সত্যি দারুন একটি ওয়েবসাইট ।

নাম্বার -৪  

আপনার যেকোনো সাদা কালো ছবিকে মুহূর্তের মধ্যেই রঙিন করে নিন, হ্যাঁ আপনি ঠিকই শুনেছেন সাদাকালো ছবিকে কালার ছবিতে রূপান্তর করা সম্ভব। এবং সেটা কয়েক মিনিটে নয় মাত্র কয়েক সেকেন্ডে। ওয়েবসাইটটি হলো http://demos.algorithmia.com/ 

এটা এমন দারুন একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি যেকোনো সাদাকালো ছবিকে কালার ছবিতে পরিবর্তন করতে পারবেন, যেকোনো ফটো সেটা ২০১০ সালের হোক আর ১৮৫০ সালের। এখানে আপনি ছবির ইউ আর এল দিয়ে ইন্টারনেটে থাকা যেকোনো ছবিকে কালার করতে পারবেন অথবা আপলোডে কিল্ক করে আপনার কম্পিউটারে রাখা ছবি থেকেও কালার করতে পারবেন। এবার আমার কম্পিউটার থেকে একটি সাদাকালো ছবি কালার করে দেখাবো আপলোড এ ক্লিক করে ওই ফটোতে ক্লিক করলাম আপনি দেখতে পাচ্ছেন কালারিং এর প্রসেস শুরু হয়ে গেছে। এখন এইটা কালার হয়ে গেছে, নিচে স্ক্রল করে দেখা যাক। আপনি দেখতে পাচ্ছেন আপনার ছবির আগের অবস্থা এবং পরের অবস্থা।  দেখুন আপনার সাদাকালো ছবি কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে কালার হয়ে গেছে। এবার ইন্টারনেটে থাকা একটি ছবি কালার করে দেখবো। সত্যি অসাধারণ একটি ওয়েবসাইট। এটা কোন এলগোরিদম ব্যবহার হয়েছে জানা যায়নি ।

নাম্বার -৫  

আপনি যদি একজন স্টুডেন্ট অথবা পৃথিবীর জনসংখ্যা সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হয়ে থাকেন তাহলে এই ওয়েবসাইট আপনার সমস্ত চাহিদা পূরণ করবে।

ওয়েবসাইটটি হলো http://worldometers.info/world-population

এখানে আপনি প্রথমেই দেখতে পাবেন বর্তমান পৃথিবীর জনসংখ্যা, এখানে আপনি পর্যায়ক্রমে দেখতে পাবেন আজ কতজন জন্মগ্রহণ করেছে, কতজন মৃত্যুবরণ করেছে

একই ভাবে আপনি দেখতে পাবেন এই বছর কতজন জন্মগ্রহণ করেছে, কতজন মৃত্যুবরণ করেছে। এখান থেকে আমরা অতীত, বর্তমান এবং ভবিষ্যৎ জনসংখ্যা সম্বন্ধে জানতে পারবো।  এখানে দেখতে পাবেন ৩০০ সালে জনসংখ্যা কত ছিল এবং ২০২১ সালে কতজন। এখান থেকে সবকিছু জানতে পারবেন। এছাড়াও ২ হাজার ১০০ সালে জনসংখ্যা কত হতে পারে তার ধারণা পেয়ে যাবেন এখান থেকে। এখানে আপনি দেশ-ধর্ম অনুযায়ী জনসংখ্যা দেখতে পাবেন। প্রতি বর্গ কিলোমিটারে কতজন বাস করে এর সব কিছুই আপনি এখান থেকে জানতে পারবেন।

এই ওয়েবসাইট থেকে আরো নানা রকমের তথ্য আপনি পেয়ে যাবেন। এখন আপনার মনে প্রশ্ন আস্তে পারে এখানে সবকি সত্য তথ্য? না সব ১০০% সত্য না এখানে কিছু গড় জনসংখ্যা হিসেবে পরিমাপ করা হয়েছে।

বন্ধুরা এই ৫টা ওয়েবসাইটের মধ্যে আপনার কাছে কোনটি সবচেয়ে মজাদার এবং উপকারী বলে মনে হয়েছে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে আমাদের জানাবেন। সবগুলি ওয়েবসাইট লিংক আমি ডেসক্রিপশনে দিয়ে দিবো।

আপনার মতামত দিন

Back to top button
%d bloggers like this: